স্বাধীনতা যুদ্ধে আমাদের আশ্রয় দিয়েছিলো ভারত- মন্ত্রী তাজুল ইসলাম

50
স্বাধীনতা যুদ্ধে আমাদের আশ্রয় দিয়েছিলো ভারত- মন্ত্রী তাজুল ইসলাম
স্বাধীনতা যুদ্ধে আমাদের আশ্রয় দিয়েছিলো ভারত- মন্ত্রী তাজুল ইসলাম

রোকনুজ্জামান সবুজ, জামালপুর 

স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলাম বলেছেন, বন্ধুত্ব ও বন্ধু পরিবর্তন করা যায় কিন্তু প্রতিবেশী কখনো পরিবর্তন করা যায় না। ভারত আমাদের প্রতিবেশী একাত্তরের স্বাধীনতা যুদ্ধে আমাদের একদিকে ছিল বঙ্গোপসাগর অন্যদিকে ছিল ভারত। ভারত যদি আমাদের এক কোটি মানুষকে আশ্রয় না দিতেন তাহলে আমাদের বঙ্গোপসাগরে ডুবে মরা ছাড়া আর কোন উপায় ছিল না। আশ্রয় দিয়ে যুদ্ধে সহায়তা করে এ দেশকে স্বাধীন করার সুযোগ করে দিয়েছিলেন ভারত। কাজেই ভারত আমাদের আজীবন প্রতিবেশী থাকবে এটাই সত্যি। জামালপুরের ইসলামপুরে গুঠাইল নৌবন্দর টু কামালপুর স্থলবন্দর এর মধ্যে দুটি সেতু ও রাস্তা নির্মাণের প্রস্তাবিত প্রকল্প পরিদর্শন ও এডিবির অর্থায়নে এ সাড়ে সাত কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত ফরিদুল হক খান অডিটোরিয়াম উদ্বোধন শেষে এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, ইন্দ্রিরা চুক্তির পর সভায় দেশের বিভিন্ন সংগঠন বলে বেরিয়েছেন যে বাংলাদেশকে বিক্রি করে দেয়া হয়েছে। অথচ চুক্তি বাস্তবায়নের পথ দেখা গেল বাংলাদেশ লাভবান হয়েছে। আওয়ামী লীগ এবং বঙ্গবন্ধুর কন্যার হাতে যতদিন থাকবে বাংলাদেশ ততদিন বাংলাদেশের উন্নয়ন হবেই হবে। গত ১৩ বছরে জননেত্রী শেখ হাসিনা দেশের বিদ্যুৎ খাত, শিল্প খাত ও খাদ্য উৎপাদনে রেকর্ড় স্থাপন করেছেন। অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচক ছিলেন, ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খান এমপি। শনিবার (৮জানুয়ারী) দুপুরে ইসলামপুর উপজেলা পরিষদ আয়োজনে জামালপুরের জেলা প্রশাসক মোর্শেদা জামানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সংরক্ষিত আসনের এমপি হোসনে আরা, স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রনালয়ের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ, এলজিইডির প্রধান প্রকৌশলী সেখ মোহাম্মদ মহসিন, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল বিভাগের প্রধান প্রকৌশলী মোঃ সাইফুর রহমান।
অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা মানিকুল ইসলাম মানিক, জামালপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এডভোকেট মুহাম্মদ বাকী বিল্লাহ, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ফারুক আহমেদ চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আঃ সালাম, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জামাল আবদুন নাসের বাবুল, পৌর মেয়র আব্দুল কাদের শেখ।
পরে জামালপুরে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগ, ইসলামপুর উপজেলা পরিষদ ও ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খান এমপি’র পক্ষ থেকে স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলামকে ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।