সিদ্ধিরগঞ্জে মৃত আলমাস আলীর লীজ প্রাপ্ত জমি আব্দুল হক গংদের অবৈধ দখলের চেষ্টা

88
সিদ্ধিরগঞ্জে মৃত আলমাস আলীর লীজ প্রাপ্ত জমি আব্দুল হক গংদের অবৈধ দখলের চেষ্টা
সিদ্ধিরগঞ্জে মৃত আলমাস আলীর লীজ প্রাপ্ত জমি আব্দুল হক গংদের অবৈধ দখলের চেষ্টা

সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ জরুরী

নিজস্ব প্রতিনিধি 

নারায়ণগঞ্জ জেলার সিদ্ধিরগঞ্জ থানাধীন নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন- ৫ নং ওয়ার্ড ওমরপুর এলাকার স্থায়ী বাসিন্দা মৃত ইউসুফ আলীর পুত্র মৃত আলমাস আলী নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা ভূমি অফিস হইতে ভিপি কেস নং-৬/৭৮ মূলে সিদ্ধিরগঞ্জ মৌজাস্থিত সি.এস.ও.এস.এ ৫১৭ নং দাগে ৩ শতাংশ ভূমি লীজ প্রাপ্ত হইয়া দীর্ঘ বৎসর যাবৎ ভোগদখল থাকা অবস্থায় মৃত্যুবরণ করিলে তার ওয়ারিশগণ এ সম্পত্তিতে বসবাস করিতে থাকে। মৃত আলমাস আলীর কন্যা রহিমা বেগম পিতার মৃত্যুতে অন্যান্য ভাইবোনদের সাথে পারিবারিকভাবে আলাপ-আলোচনা করিয়া পিতার স্থল ভিত্তিতে গত ০১-০৯-২০২১ ইং তারিখে নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক বরাবর লীজ চাহিয়া আবেদন করেন। অথচ, সরকারি জমিটি আব্দুল হক গং অবৈধভাবে দখল করার চেষ্টা করছে।
ঘটনা সূত্রে জানা যায়, গত ১৬ই অক্টোবর আনুমানিক সকাল ৮টায় একই এলাকার মৃত সামসু আহম্মেদ এর পুত্র আব্দুল হক এবং তার পুত্র ইমরান, মিতুল ও মৃত ফজল হক এর পুত্র আকাশ ও পিয়াসসহ তাদের সাথে থাকা সঙ্গীয় চার থেকে পাঁচজন সন্ত্রাসী প্রকৃতির লোকজন রহিমার বসতবাড়িতে দেশীয় অস্ত্র হাতে সজ্জিত হইয়া জোরপূর্বক রহিমার বাড়িতে প্রবেশ করিয়া রহিমাকে তার বসত বাড়ি হইতে বেদখল করার চেষ্টা করিয়া বাউন্ডারি দেয়াল নির্মাণ করার চেষ্টা করে। এ সময় রহিমা সহ তার পরিবারের লোকজন তাদের অবৈধ কাজে প্রতিবাদ করিতে গেলে সংঘবদ্ধ ভূমিদস্যু অবৈধ সন্ত্রাসী প্রকৃতির দখলদাররা রহিমাকে গলা ধাক্কা দিয়া ফালাইয়া দেয়। সেই সাথে আব্দুল হক সহ তার সঙ্গীয়রা রহিমার পরনের কাপড় টানা হেচরা করিয়া খুলিয়া ফেলে এবং তাকে এই বলিয়া হুমকি প্রদান করে বেশি বাড়াবাড়ি করিলে কিংবা তাদের কাজে বাধা প্রদান করিলে রহিমা সহ তার পরিবারের লোকজনকে প্রাণে মারিয়া ফেলিয়া লাশ গুম করিয়া বসত বাড়িটি তাদের দখলে নিয়ে নিবে।
এ বিষয়ে ভূক্তভোহী রহিমা আরও বলেন, আমি এই অন্যায়ের ন্যায় বিচার চেয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করি যাহার নং- এস এল ১১০৫১ তারিখ-১৬-১০-২০২১। উক্ত অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তকারী অফিসার এস.আই নূরে আলম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে রহিমাকে আশ্বস্ত করেন আমি আমার উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবো।
অসহায় রহিমার আকুল আবেদন তার পিতার লীজ কৃত ভূমিতে স্বামী সন্তান নিয়ে খেয়ে না খেয়ে দিন যাপন করছেন। তার শেষ সম্বল মাথা গোজার স্হান সরকারি জমিটুকু। সরকারি এই জমি আত্নসাৎ করার জন্য আব্দুল হকসহ তার সঙ্গীয়রা মরিয়া হয়ে উঠেছে। যেখানে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ভূমিহীনদের জন্য মাথা গোজার স্হান হিসাবে বিভিন্ন ভাবে ভূমি বরাদ্দ দিয়ে যাচ্ছে। অথচ কতিপয় ব্যাক্তি সরকার দলীয় নাম ভাঙিয়ে সমাজে অবৈধভাবে প্রভাব বিস্তার করে সরকারের মানক্ষুন্ন করে যাচ্ছে। তারা সমাজে সমাজ প্রতিনিধির মুখোশ পড়ে মুখোশের অন্তরালে অনৈতিক ও অসামাজিক কাজ করছে। সেই সাথে অসহায় মানুষের সম্পত্তি অবৈধভাবে দখল করা সহ ছাড় দিচ্ছে না সরকারি জমিও। তারা সর্বদাই অবৈধভাবে দখলের মহা উৎসবে মেতে রয়েছে। সাধারণ মানুষের দাবি এ ধরণের ব্যক্তিদের আইনের নজরদারিতে রেখে অবৈধ কাজের জন্য শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহণ করা হোক। এতিম অসহায় রহিমার আকুল আবেদন তার মাথা গোজার শেষ সম্বলটুকু এই চক্রান্তকারী ভূমিদস্যুদের হাত হতে রক্ষা পেতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ ও সহযোগিতা কামনা করেন।