মানুষের সেবায় নিজেকে বিলিয়ে দিতে চান উম্মে তাহেরা আখি

36
মানুষের সেবায় নিজেকে বিলিয়ে দিতে চান উম্মে তাহেরা আখি
মানুষের সেবায় নিজেকে বিলিয়ে দিতে চান উম্মে তাহেরা আখি

ঢাকা অফিস 

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার আসন্ন ফতুল্লা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে ফতুল্লা ১,২ ও ৩ নং ওয়ার্ডের সরক্ষিত মহিলা আসনের পদপ্রার্থী হয়ে গরিব দুঃখী ও মেহনতী মানুষের সেবায় নিজেকে বিলিয়ে দিতে চান উম্মে তাহেরা আখি।

ফতুল্লা পোস্ট অফিস এলাকায় মরহুম মরণ আলী মেম্বারের নাতনী এবং ফতুল্লা প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি সাংবাদিক নেতা এম সামাদ মতিনের ছোট বোন। স্থানীয় বাসিন্দাদের মধ্যে বংশীয় আভিজাত্যে এলাকায় বেশ প্রশংসনীয় ও সুনামের সাথে সামাজিকভাবে নিজেকে নিয়োজিত রেখেছেন উম্মে তাহেরা আখি।

এরই ধারাবাহিকতায় তিনি ফতুল্লা ইউনিয়নের ১,২ ও ৩ নং ওয়ার্ডের এলাকার উন্নয়নে এবং নারীদের কল্যাণে কাজ করবেন বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এর ফলেই এলাকাবাসী ও শুভাকাঙ্গীদের অনুপ্রেরণায় ওই ওয়ার্ডের মহিলা মেম্বার পদপ্রার্থী হয়েছেন।

উম্মে তাহেরা আখি বলেন, আমি দীর্ঘ দিন ধরে গরিব দুঃখী মেহনতী মানুষের সেবা করে আসছি এবং সামনেও সেবিকা হয়ে কাজ করতে চাই। বিশেষ করে আমার নির্বাচনী ওয়ার্ড ফতুল্লা ১,২ ও ৩ নং ওয়ার্ডবাসীদের সেবায় নিজেকে সার্বক্ষনিক নিয়োজিত করতে চাই। গরীব দুঃখী ও অসহায় নির্যাতিত নিপিড়িত মানুষের পাশে থেকে তাদের জন্য কাজ করতে চাই।

তিনি আরো বলেন, আমি জনগণের সেবা করতে চাই। জনগণের সেবায় নিজেকে নিয়োজিত রাখতে পারাই আমার কাছে অনেক গৌরবের। সকলে আমার জন্য দোয়া করবেন। আপনারা আমার ভালো কাজে ভালোবাসা দিয়ে সমর্থন করবেন এই প্রত্যাাশা করছি।

এলাকাবাসীরা জানায়, উম্মে তাহেরা আখি মানুষের সুখে দুখে ছুটে যান। অসহায় মানুষদের পাশে রয়েছেন। তাদের খোঁজ খবর রাখেন, বিপদে এগিয়ে আসাসহ নানা সামাজিক কর্মকান্ড কওে থাকেন। সকল শ্রেণী পেশার মানুষ তার আচার ব্যবহারে মুগ্ধ।

ইতিমধ্যে উম্মে তাহেরা আখি মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন এবং এলাকার মুরব্বিদের নিয়ে ভোটারদের বাড়িতে বাড়িতে ছুটে চলেছেন। দীর্ঘ ২৯ বছর আইনী জটিলতার কারনে নির্বাচন বন্ধ থকায় জনগন ভোট অধিকার থেকে বঞ্চিত হয়েছেন। তবে এবার সাধারন মানুষের মনে নির্বাচন নিয়ে ব্যপক উৎসাহ উদ্দিপনা দেখা দিয়েছে। সকলে চাই যোগ্য, মেধাবী তারন্য দিপ্ত নেতৃত্ব আসুক সমাজে। সেই বিচারে উক্ত এলাকায় এগিয়ে চলেছেন উম্মে তাহেরা আখি ।