ঢাকা-রূপসী-মুড়াপাড়া-কাঞ্চন সড়কে ঝুঁকি নিয়ে যান চলাচল, দুর্ভোগ চরমে

93
ঢাকা-রূপসী-মুড়াপাড়া-কাঞ্চন সড়কে ঝুঁকি নিয়ে যান চলাচল, দুর্ভোগ চরমে
ঢাকা-রূপসী-মুড়াপাড়া-কাঞ্চন সড়কে ঝুঁকি নিয়ে যান চলাচল, দুর্ভোগ চরমে

রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি 
ঢাক-রূপসী-মুড়াপাড়া-কাঞ্চন সড়কের রূপসী থেকে কাঞ্চন সেতু পর্যন্ত ১৪ কিলোমিটার সড়ক চলাচলে অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। স্থানে স্থানে গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। এলজিইডির এ সড়কে খানাখন্দ, সৃষ্ট গর্তে কোথাও হাঁটু সমান পানি। আবার কোথাও কোমর সমান পানি জমে থাকে। সামান্য বৃষ্টিতেই সড়কের উপর পানি থই থই করে। প্রতিদিনই হালকা পরিবহন উল্টে দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছে। রাস্তার দুই পাশ দিয়ে পথচারীরা চলাচল করতে পারছে না। পাকা রাস্তার মাঝখানে কাদার ছড়াছড়ি। তাতে এলাকাবাসীর দুর্ভোগ বেড়েই চলছে। এ সড়কের বেহাল অবস্থার কারণে বর্তমান সরকারের রূপগঞ্জের সকল উন্নয়ন কাজ এখন ভেস্তে যেতে বসেছে।

আরও পড়ুনঃ

খবরীর কলকাঠিতে রাজধানীতে অবিরাম মাদক ব্যবসা চলছেই

পাথরবাহী লড়ি ও মালবাহী ট্রাক অবাদে চলাচল করার কারণে সড়কের এমন বেহাল অবস্থা হয়েছে বলে স্থানীয়দের দাবী। সড়কের এমন বেহাল দশার কারণে স্থানীয় লোকজনের ভোগান্তিও চরমে উঠেছে। রাস্তাটি সংস্কার হবে বলে দীর্ঘদিন পার করলেও সংস্কার না করায় সড়কটি এখন মরণফাঁদে পরিণত হয়েছে। এ রাস্তা দিয়ে গাড়ি চালালেই দূর্ঘটনার মুখে পড়তে হয়। সড়কের দুই পাশেই গভীর নালা তৈরী করা হলেও, তা পুরোপুরি সচল না হওয়ায় সেটা দিয়ে পানি যেতে পারছে না। যার কারণে সড়কের উপর স্থায়ী জলাবদ্ধতায় রূপ নিয়েছে। এখানে শুষ্ক মৌসুমে ধুলাবালু ও খানাখন্দ আর বর্ষার সময় জলাবদ্ধতা। সারা বছর খোঁড়াখুঁড়ি তো আছেই।
সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, উপজেলা কমপ্লেক্সে সেবা নিতে আসা লোকজনকে চরম ভোগান্তিতে পড়তে হয়। ইছার মাথা ও ইটবহনকারী ট্রাক চলাচল করে সড়কটি ভেঙ্গে যাচ্ছে। রাতের আঁধারে এনডিই এর পাথরবাহী ট্রাক সহ মালবাহী ভারী যানবাহন চলাচল করায় সড়কটি দিন দিন অকেজো হয়ে পড়ছে। স্থানে স্থানে খানাখন্দের গর্তে পানি জমে থাকায় হালকা যানবাহনের ইঞ্জিনে পানি প্রবেশ করছে। তাতে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে গাড়ীর মালিকরা।
মুড়াপাড়ার দড়িকান্দি এলাকার কৃষক খালেক মিয়া বলেন, সড়কটি ঝুকিপূর্ণ হওয়ায় তাদের উৎপাদিত পণ্য সময়মতো বাজারজাত করতে পারছেনা। তাতে কৃষকরা আর্থিক সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন। অন্যদিকে পরিবহন খরচ ও সময় বেশী লাগছে। সড়কের মুড়াপাড়া-ত্রিশকাহনিয়া অংশটি অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ হওয়ায় হাটাবো, বাড়ৈপাড়া, টেকপাড়া, ডুলুরদা, মাছুমাবাদ, মিঠাবো এলাকার মানুষ দশ কিলোমিটার রাস্তা ঘুরে বিকল্প রাস্তা দিয়ে উপজেলা কমপ্লেক্সে আসা যাওয়া করতে বাধ্য হচ্ছে।
মুড়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ তোফায়েল আহমেদ আলমাছ বলেন, রূপসী-মুড়াপাড়া-কাঞ্চন সড়ক অবিলম্বে সংস্কার করা প্রয়োজন। শিগগিরই সড়কটি সংস্কার করা হবে বলেও তিনি আশা প্রকাশ করেন।
রূপগঞ্জ উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ জামালউদ্দিন বলেন, কাঞ্চন-রূপসী সড়কের উন্নয়ন কাজ এগিয়ে চলছে। সড়কের ঝুঁকিপূর্ণ স্থান পরিদর্শন করা হয়েছে। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি অবহিত করা হয়েছে।
রূপগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ শাহজাহান ভুঁইয়া বলেন, এলাকাবাসীর আবেদনের প্রেক্ষিতে এ সড়কের ঝুঁকিপূর্ণ স্থান চিহ্নিত করা হয়েছে। সড়কটি ৩০ ফুট প্রস্থ করে সংস্কার কাজ শুরু হয়েছে। ডিসেম্বর মাসের মধ্যেই সড়কের উন্নয়ন কাজ সম্পন্ন হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।